27 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
রাত ৪:৪৫ | ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
সুন্দরবন রক্ষায় পশ্চিমবঙ্গের এক পরিবেশপ্রেমী
জানা-অজানা পরিবেশ রক্ষা

সুন্দরবন রক্ষায় পশ্চিমবঙ্গের এক পরিবেশপ্রেমী

সুন্দরবন রক্ষায় পশ্চিমবঙ্গের এক পরিবেশপ্রেমী

নির্বিচারে গাছকাটা, নদীতে বাঁধ নির্মাণসহ বিভিন্ন কারণে দিন দিন ধ্বংসের মুখে সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল৷ সন্দরবনের বাস্তুতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে কঠোর চেষ্টায় পশ্চিমবঙ্গের এক পরিবেশপ্রেমী৷

১২ বছরে সাড়ে ছয় লক্ষ ম্যানগ্রোভ রোপণ করেছেন ‘উমাশঙ্কর মণ্ডল’ যিনি পেশায় ভূগোলের শিক্ষক ৷ পেশায় শিক্ষক হলেও সবাই কাছে ‘ম্যানগ্রোভ ম্যান’ নামে পরিচিত৷ নাম ‘উমাশঙ্কর মণ্ডল’৷ গত ১২ বছর ধরে সাড়ে ছয় লক্ষ ম্যানগ্রোভ রোপণ করেছেন তিনি৷ ২৬ জুলাই আন্তর্জাতিক ম্যানগ্রোভ দিবসের প্রাক্কালে ‘ম্যানগ্রোভ ম্যান’ বললেন তাঁর পরিকল্পনার কথা৷



আইলা, আমফান ও তার পরবর্তী ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে সুন্দরবনের মারাত্মক ভাবে ক্ষতি করেছে৷ এমন দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য পরিবেশবিদরা বারবারই ম্যানগ্রোভ লাগানোর কথা বলছেন৷ খোদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ম্যানগ্রোভ রোপণের উপর জোর দিয়েছেন৷

কিন্তু এসবের বহু আগে থেকেই মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরের উমাশঙ্কর মণ্ডল ম্যানগ্রোভ রোপণ এবং পরিচর্যা করে চলেছেন৷ এ লক্ষ্যে ৪২ বছরের উমাশঙ্করের ‘পূর্বাশা ইকো হেল্পলাইন সোসাইটি’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা গড়ে তোলেছেন৷ স্থানীয়দের সহযোগিতায় ম্যানগ্রোভ রোপণের আদর্শ মডেল গড়ে তোলার পাশাপাশি এলাকার আর্থ সামাজিক চিএ পাল্টে দিয়েছেন ম্যানগ্রোভ ম্যান৷

উমাশঙ্কর বাড়ি সুন্দরবনের গোসাবার সাতজেলিয়া দ্বীপের চরঘেরিতে৷ ২০০৯ সালে ঘূর্ণিঝড় আইলার ভয়াবহ অভিজ্ঞতার পর তিনি পরিবেশ রক্ষায় সচেতন হন৷ সেসময় নদীতে ভেসে আসা ম্যানগ্রোভের বীজ সংগ্রহ করেন তিনি৷ স্থানীয় ২২০ জন মানুষকে একত্র করে বীজ এবং গাছ লাগানোর কাজ শুরু করেন৷

উমাশঙ্কর বলেন,‘‘ম্যানগ্রোভ লাগানো ও পরিচর্যা দীর্ঘমেয়াদি কাজ৷ শুধুমাএ ভাটার সময়েই গাছ লাগানো যায়৷ প্রথমে সাড়ে ১০ হেক্টর জায়গাতে আমরা গাছ লাগাই৷ প্রাকৃতিকভাবে সেগুলি এখন বেড়ে চারগুণ হয়েছে৷’’

বাস্তুতন্ত্রের পুনরুদ্ধারের উমাশঙ্কর বরাবরই অর্থনৈতিক উন্নতিকে গুরুত্ব দিয়েছেন৷ রাজকাঁকড়া, চিংড়ি, ভেটকি, ঝিনুক, সাপ ইত্যাদি বিভিন্ন জলজ প্রাণিদের বাসস্থান মানুষের অত্যাচারে ধ্বংস হতে বসেছিল৷



ম্যানগ্রোভ সৃজনে প্রাণিকুলের বসবাসের পরিবেশ ফিরিয়ে দিয়ে আদতে জনজাতির অর্থনীতিকেই সমৃদ্ধ করছেন উমাশঙ্কর৷

ম্যানগ্রোভ লাগানোর জন্য তিনি যে মডেল তৈরি করেছেন সেটাও বেশ বৈচিত্র্যময়৷ স্থানীয় দরিদ্রদের দিয়ে তিনি ম্যানগ্রোভ লাগানোর প্রকল্পটি এগিয়েছেন৷

বিনিময়ে সেই মানুষদের হাতে শীতের কম্বল, স্যানিটারি ন্যাপকিন কিংবা পুজোর জামাকাপড় তুলে দিয়েছেন৷ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা আর চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার ব্যবস্থাও করেছেন৷ শিশুদের হাতে তুলে দিয়েছেন বইখাতা৷

এত বড় কাজে কীভাবে অর্থ জোগাড় হয়? ক্রাউড ফান্ডিংয়ের মাধ্যমে অর্থাৎ ব্যক্তি পর্যায়ের ছোট ছোট অনুদান সংগ্রহ করে তহবিল গড়ে তোলেন তিনি৷

“Green Page” কে সহযোগিতার আহ্বান

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত