27 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
রাত ১১:০৩ | ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
লোনা পানির অনুপ্রবেশে চরম বিপর্যয়ের আশঙ্কায় কপোতাক্ষ নদ
কৃষি পরিবেশ পরিবেশগত সমস্যা

লোনা পানির অনুপ্রবেশে চরম বিপর্যয়ের আশঙ্কায় কপোতাক্ষ নদ

লোনা পানির অনুপ্রবেশে চরম বিপর্যয়ের আশঙ্কায় কপোতাক্ষ নদ

সাতক্ষীরা: হঠাৎ করেই মাইকেল মধুসূদন দত্তের স্মৃতি বিজড়িত কপোতাক্ষ নদে সমুদ্রের অতি লোনা পানির অনুপ্রবেশ ঘটেছে যাতে ইতিমধ্যে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে কপোতাক্ষ নদের ওপর। নদের উপর নির্ভরশীল স্থানীয় কৃষি-প্রাণ বৈচিত্র্যে পড়ছে প্রাকৃতিক হুমকী ও ধ্বংশ।

ইতিমধ্যেই সেচের পানির অভাবে ফসলের ক্ষেত ফেটে চৌচির হয়ে গেছে, পচতে শুরু করেছে কপোতাক্ষে জমাট বেধে থাকা কচুরিপানা এছাড়াও না জানা বিপর্যয় ঘনিয়ে আসছে স্থানীয় নদ পাড়ের মানুষ ও প্রানীরা।



স্থানীয়রা জানান, সাতক্ষীরার কলারোয়া ও যশোরের কেশবপুরসহ নদীর তীরবর্তী বসবাসরত কয়েক হাজার পরিবারসহ  বিশাল কৃষি জমির সিংহভাগ পানির চাহিদা মেটে এই কপোতাক্ষ নদ থেকে। গত একমাসের বেশী দিন হলো কপোতাক্ষ নদে হঠাৎ করেই চিরায়ত ধারার মিষ্টি পানির পরিবর্তন হয়ে লোনা পানির অনুপ্রবেশ ঘটেছে। এতে সেচ সংকটে কপোতাক্ষের ওপর নির্ভরশীল মানুষ পড়েছেন চরম বিপাকে। কৃষি কাজ, মিল, ছোটবড় কারখানা ও গবাদিপশু পালনে মিষ্টি পানির সংকট জীবন ও জীবিকা চরম আকার ধারণ করেছে।

কলারোয়ার জয়নগর আওয়ামী লীগের স্থানীয় সাধারণ সম্পাদক তাপস কুমার পাল বলেন, হঠাৎ নদীতে লোনা পানি প্রবেশ করায় তা ব্যবহার করা যাচ্ছে না। পরিবার ও কৃষি কাজে নদীর পানি ব্যবহার করতে না পারায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছে এলাকার মানুষ। কৃষি কাজে কপোতাক্ষ নদের পানি ব্যবহারে অভ্যস্ত কৃষকদের এখন চরম দুরাবস্থা। কেন ও কিভাবে এটি ঘটল তা তদন্দ ও গবেষনার বিষয়।

স্থানীয় চাষি সুবির পাল বলেন, একদিকে অনাবৃষ্টিতে শুকিয়ে রয়েছে পুকুর জলাশয় গুলো আবার অন্যদিকে ভূগর্ভস্থ পানির লেয়ার নিচে নেমে যাওয়ায় টিউবওয়েলসহ সেচ কার্যে ব্যবহৃত মোটর ও স্যালোমেশিনও চাহিদা থেকে খুবইসামান্য পানি পাওয়া যাচ্ছে৷ কপোতাক্ষ নদের পানি আগে সব কাজে সিংহভাগ ব্যবহার কর আসলেও এখন নদীতে লোনা পানি প্রবেশ করায় কাজ ব্যাহত হচ্ছে। পানির অভাবে ইরি ধানের জমি ফেঁটে চৌচির হয়ে গেছে। ধান ফোঁটার মুখে এমন পানি সংকটে কৃষকের চরম ক্ষতিতে পতিত করবে।

স্থানীয়রা বলেন, আমরা নদীর তীরবর্তী বসবাস করায় কপোতাক্ষ নদের ওপরই ৯০ শতাংশ বা তার থেকেও বেশী নির্ভরশীল৷ নদীতে লবণাক্ত পানি আসায় পশুপালন, নিজেদের গোসল, পরিবারের রান্নাসহ সব কাজের স্বাভাবিকতা নষ্ট হচ্ছে।এখন আমরা কোনো কাজই করেতে পারছি না৷ কচুরিপানা পঁচে পানি দিন দিন দুর্গন্ধ হয়ে পানিতে ও বাতাসে প্রভাব ফেলছে। লবণাক্ত পানি প্রথমে না বুঝে খাওয়ানোতে গরু-ছাগল রোগগ্রস্ত হয়ে পড়ছে৷



জয়নগরের ধান চাষিরা বলেন, নদীতে লোনা পানি এসে ইরি ধানসহ পাট, পানের বরজ ও সবজি আবাদে সেচ কাজ চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ধানের ফলন বিঘাতে ২২-২৫ মণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও শেষ পর্যায়ে সেচের পানির অভাবে ধানের রোগ বালাইয়ের উপদ্রব বেড়ে যায়। পানির নানামুখি সংকটের জন্য এখানকার কৃষদের চরম লোকসান গুণতে হতে পারে।

পান চাষিরা বলেন, পানের বরজে সেচের অভাবে মাটি ফেঁটে চৌচির হয়ে গেছে। লোনা পানি সেচের জন্য অনুপযোগী হওয়ায় বরজে সেচ দিতে পারছি না। কাট ফাঁটা রোদে পান ছোট হয়ে যাচ্ছে, পানের গাছও মারা যাচ্ছে।

কপোতাক্ষে লোনা পানি অনুপ্রবেশের বিষয়ে গবেষক ও লেখক পাভেল পার্থ বলেন, জোয়ার ভাটার প্রাকৃতিক প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হওয়া ও নদীর তলদেহ ভরাট হওয়ার কারণে সমুদ্রের লোনা পানি অনেক বেশি অভ্যন্তরে চলে আসতে পারে। একইসঙ্গে সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি পাওয়ায় এটি জলবায়ু পরিবর্তনের অশনি সংকেত নির্দেশ করে। এ মুহূর্তে পানি উন্নয়ন বোর্ডের উচিত হবে বৈজ্ঞানিক গবেষণা করে বিষয়টির তদন্ত করা। লোনা পানি প্রবেশের কারণে কৃষি ও মৎস্যজীবীদের জীবনযাত্রা চরমভাবে বিঘ্নিত হবে। বিপর্যয় ঘনিয়ে আসবে স্থানীয় কৃষি প্রাণ বৈচিত্র্যে। আমাদের নিজেদেরই রক্ষা করা কঠিন হবে। এ মুহূর্তে বিশ্ব সম্প্রদায়ের উচিত জলবায়ু পরিবর্তনের এমন প্রভাব মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক তহবিল ও তৎপরতা বাড়ানো। যাতে বৈশ্বিক তহবিল থেকে সাহায্য পাওয়া যায়।

এ তহবিল কপোতাক্ষ নদ পুনরুদ্ধারে ভূমিকা রাখতে পারে। তবে, শুধুমাত্র তহবিল দ্বারা সম্ভব না, নীতিগত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কার্বন নিঃসরণ কমাতে হবে। আর লোকালি যেটা করা যেতে পারে, সেটা হলো উজান থেকে ভাটিতে কোনো ব্যারেজ না দেওয়া ও খনন করা, যোগ করেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০৭২৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০২১

“Green Page” কে সহযোগিতার আহ্বান

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত