33 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
বিকাল ৪:০৯ | ৭ই জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
বিশ্ব মাণচিত্রে করোণা ভাইরাস ( কোবিড – ১৯) এ আক্রান্ত রোগী এবং মারা যাওয়ার চিত্র
করোনা ভাইরাস রহমান মাহফুজ

বিশ্ব মাণচিত্রে করোণা ভাইরাস ( কোবিড – ১৯) এ আক্রান্ত রোগী এবং মারা যাওয়ার চিত্র

বিশ্ব মাণচিত্রে করোণা ভাইরাস ( কোবিড – ১৯) এ আক্রান্ত রোগী এবং মারা যাওয়ার চিত্র

রহমান মাহফুজ, প্রকৌশলী, পরিবেশ কর্মী, পরিবেশ এবং পরিবেশ অর্থনৈতিক কলামিষ্ট, সংগঠক এবং সমাজসেবী।

করোণা (কোবিড – ১৯) ভাইরাস উৎিপত্তি চীনের হুবি প্রদেশের রাজধানী উলান শহরে এবং সেখান হতে ই দ্রুত সারা বিশ্বে ছড়িয়ি পড়ছে।

Coronavirus updates

নীচে দেশগুলোতে এর বিস্তাররের চিত্র প্রদত্ত হলো;-



এ প্রাণ ঘাতক ভাইরাসে চীনের মূল ভূ-খন্ডেই আক্রান্তের সংখ্যা বেশী হলেও বর্তমানে প্রায় সকল দেশ আক্রান্ত হয়েছে  অধিক মৃত্যু বরণ করেছে এবং করছে ।

নীচে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আমেরিকায় এ প্রাণ ঘাতক ভাইরাসের বিস্তার এর বিস্তাররের চিত্র প্রদত্ত হলো;


কিভাবে সারা পৃথিবীতে প্রাণ ঘাতক ভাইরাসটি ছড়িয়েছে তা বিশ্ব মানচিত্রে দেখানো হল:- দেশসমূহে লাল ফোটায় নতুন আক্রান্ত এবং ছায়াবৃত ফোটায় প্রথম আক্রান্ত দেখানো হ’ল

২২ জানুয়ারী, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ৫৫৫, মোট আক্রান্তের ঘটনা ৫৫৫ টি
নতুন আক্রান্ত দেশ – চায়না, থাইল্যান্ড, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, যুক্তরাষ্ট্র, মেকিউ।
২৬ জানুয়ারী, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ৬৮৪, মোট আক্রান্তের ঘটনা ২,১১৮ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – কানাডা এবং আস্টেলিয়া।
৩১ জানুয়ারী, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ১,৬৯৩, মোট আক্রান্তের ঘটনা ৯,৯২৭ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – ইটালী, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া এবং সুইডেন।

১৯ ফ্রেরুয়ারী, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ৬,৫১৭, মোট আক্রান্তের ঘটনা ৬৬,৮৮৭ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – ইরাণ
২৬ ফ্রেরুয়ারী, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ৯৮২, মোট আক্রান্তের ঘটনা ৮১,৩৯৭ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – পাকিস্তান, ব্রাজিল, জর্জিয়া, গ্রীস, উত্তর মেসিডোনিয়া, নরওয়ে এবং রুমানিয়া।
৩ মার্চ, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ২,৫৩৫, মোট আক্রান্তের ঘটনা ৯২,৮৪৪ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – আর্জেন্টেনিয়া, চিলি, জর্ডান এবং ইউক্রেণ।

 

৫ মার্চ, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ২,৭৬২, মোট আক্রান্তের ঘটনা ৯৭,৮৮৬ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – পেলেস্টাইন, বসেনিয়া এবং হারজেগিভিয়া, স্লোভেনিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা।
৬ মার্চ, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ৩,৯১৪, মোট আক্রান্তের ঘটনা ১,০১,৭৯৯ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – ভূটান, ক্যামেরূন, কলম্বিয়া, কোস্টারিকা, পেরু, সার্বিয়া, স্লোভাকিয়া, টোগো এবং ভ্যাটিক্যান সিটি।
৭ মার্চ, ঐ দিনের আক্রান্তের ঘটনা ৪০৩৭, মোট আক্রান্তের ঘটনা ১,০৫,৮৩৬ টি।
নতুন আক্রান্ত দেশ – গুয়েনা ও মাল্টা।

গত ডিসেম্বরে এই শ্বাসযন্ত্রে আক্রান্তের ভাইরাসটি দেখা দেয়ার পর হতে বিশ্বব্যাপী দ্রুত ছড়াচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে যে, উলানের পশু-পাখির একটি বাজার হতে এই ভাইরাসটি ছড়িয়েছে। হংকয়ের স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞদের মতে এ ভাইরাসটি যদি নিয়ন্ত্রণ করা না যায়, তবে ইহায় বিশ্বের মোট জনসংখ্যার দুই-তৃতীয়াংশ আক্রান্ত হবে।

সারা বিশ্বে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া অনেকই সুস্থ্য হয়েছে। কোবিড – ১৯ যেহেতু ভাইরাস জনিত রোগ, তাই এ ভাইরাস জনিত জ্বরে রোগীকে এন্টিবায়োটিক বা এন্টিভাইরাল ঔষধ প্রয়োগ করা যাবে না। রোগী সুস্থ্য হওয়া নির্ভর করে তার দেহে ইমুনো সিসটেম (Immune system) কতটুকু শক্তিশালী এবং এ পর্যন্ত যারা মারা গেছে তারা দূর্বল স্বাস্থ্যের অধিকারী ছিল।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) কর্তৃক এ ভাইরাস এর সংক্রোমণ হতে রক্ষায় যে সকল সাধারণ সর্তকতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে তা অনুসরণ করলেই এ ভাইরাস হতে মুক্তি পাওয়া যাবে (সর্তকতা সমূহ এ পোর্টালের অন্য লেখায় দেয়া আছে আথবা WHO এর ওয়েভ পেইজ এ দেয়া আছে)।

বিশ্বব্যাপি এ পর্যন্ত কোবিড – ১৯ আক্রান্ত এর ঘটনা, মৃত্যু ও সুস্থ্য হওয়া রোগীর পরিসংখ্যান:

Source: The Guardian

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত