17 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
রাত ২:৩৪ | ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
বায়ুমণ্ডলের দূষণ থেকেও ছড়াতে ক্ষতিকর সব রোগ-জীবাণু
আন্তর্জাতিক পরিবেশ পরিবেশ গবেষণা

বায়ুমণ্ডলের দূষণ থেকেও ছড়াতে ক্ষতিকর সব রোগ-জীবাণু

বায়ুমণ্ডলের দূষিত ধোঁয়া-ধুলিকণা থেকেও ছড়াতে পারে ক্ষতিকর সব রোগ-জীবাণু, দাবি গবেষকদের

আর্ন্তজাতিক : পৃথিবী জুড়ে অব্যাহত প্রানঘাতী কভিড-১৯ করোনার দাবানল। বছর ঘুরতে চললেও সংক্রমণের দাপট এখনও ঊর্ধ্বমুখী আর কোনভাবেই যেন তা দমছে না। আর এই মরণব্যাধির দাপটে যখন সাধারণ মানুষের চিন্তার অন্ত নেই ঠিক তখনই ফের আরও এক আশঙ্কার কথা শোনালেন বিজ্ঞানীরা।

সম্প্রতি ‘অ্যাটমোস্ফেরিক রিসার্চ জার্নালে স্পেনের গ্রানাডা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানীরা দীর্ঘ অনুসন্ধানের পর দাবি করেছেন যে, শুধু প্রানঘাতী কভিড-১৯ করোনার মতো জীবাণুই নয়, যেকোনও ধরনের এককোষী অনুজীব অর্থাত্‍ ব্যাকটেরিয়া নামক রোগ-জীবাণুর দ্রুত সংক্রমণ ঘটাতে পারে। নতুন এই গবেষণায় আরও বলা হয়েছে যে, এই জীবাণুগুলি কেবল মানব এবং প্রাণী স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে না, জলবায়ু এবং বাস্তুতন্ত্রকেও ব্যাপক ভাবে প্রভাবিত করতে পারে এরা।

স্বাস্থ্য সংক্রান্ত এই জার্নালে’ প্রকাশিত গবেষণায় গবেষকরা দেখিয়েছেন যে, যেকোনও ধরনের ব্যাকটেরিয়া এক জায়গা থেকে বা একটি পাত্র থেকে দ্রুত অন্য পাত্রে প্রবেশ করে নোংরা জীবাণু ছড়িয়ে দিতে সক্ষম এবং ক্ষেত্রবিশেষ তা পূর্বের থেকেও শক্তিশালী হয়। এরফলে মানব দেহ ছাড়াও পরিবেশের উপরও যথেষ্ট কুপ্রভাব পড়ে এবং হুমকীর কারণ হয়।

স্পেনের গ্রানাডা ইউনিভার্সিটির (ইউজিআর) বিজ্ঞানীদের মতে, এই অ্যারোসোলগুলি ব্যাকটিরিয়ার জন্য ‘লঞ্চ বাহন’ এর মতো কাজ করে এবং সমস্ত পৃথিবী জুড়ে রোগের সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি তৈরি করতে পারে।



তাঁরা ব্যাখ্যা করেছিলেন যে, ব্যাকটেরিয়া আইবারুলাইট গুলি একাধিক খনিজ দ্বারা তৈরি। বিশাল বায়ুমণ্ডলীয় বায়োয়ারসোল, প্রায় একশো মাইক্রন গড়ে পরিমাপ করা হয়।

২০০৮ সালে এই বায়োয়ারোসোলগুলি আবিষ্কার করা হলেও, বিজ্ঞানীরা বলেছিলেন যে যে পদ্ধতি দ্বারা জীবাণুগুলি বায়ুমণ্ডলীয় আইবারুলাইট তৈরিতে জড়িত তা এখনও অজানা।

বর্তমান সমীক্ষায় গবেষকরা স্পেনের গ্রানাডা শহরে বায়ুমণ্ডলীয় ধুলিকণা জমার বিশ্লেষণ করেছেন।সেখানে তাঁরা দেখিয়েছেন যে এই সংক্রমিত ব্যাকটেরিয়ার চরিত্র কিছুটা ভিন্নধর্মী ছিল। এর গঠনের মধ্যে প্রধানত কাদামাটি, কোয়ার্টজ এবং কার্বনেট খনিজ এবং লোহার অক্সাইডগুলি কিছুটা কম ছিল।

গবেষকদের মতে, এই অ্যারোসোলগুলি পুরো পৃথিবী জুড়ে ছড়িয়ে থাকতে পারে। প্রাথমিকভাবে মরু অঞ্চলগুলি থেকে ধুলো বয়ে যায় সেই অঞ্চলগুলিতে এরা বেশি রয়েছে । ফলে সংক্রমণের বিস্তার আরও প্রসারিত করে তুলতে পারে এই ধরণের ক্ষতিকর জীবাণুগুলি।

“Green Page” কে সহযোগিতার আহ্বান

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত