34 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
সন্ধ্যা ৬:১৪ | ৮ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
পলিথিনমুক্ত পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন পরিবেশ গড়ার অঙ্গিকার স্কাউটদের
পরিবেশ রক্ষা শিক্ষা

স্কাউটদের পলিথিনমুক্ত পরিষ্কার ও পরিচ্ছন্ন পরিবেশ গড়ার অঙ্গিকার

গাজীপুরের মৌচাকে জাতীয় স্কাউট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ছয় দিনব্যাপী নবম জাতীয় কাব ক্যাম্পুরি হয়েছে।এবারের কাব ক্যাম্পুরির অন্যতম বার্তা ছিল পলিথিনের কম ব্যবহার ও পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন থাকা।ক্যাম্পের অনুষ্ঠান শেষে সার বেঁধে স্কাউট দল হেঁটে চলেছে তাঁবুর দিকে। হাঁটা পথে পড়ে থাকা টিস্যু, কাগজ কুড়িয়ে তারা তা যথাস্থানে ফেলছে।

কাব ক্যাম্পুরিতে এবার চারটি ভিলেজ ছিল। প্রতিটি ভিলেজের সাবক্যাম্প ছিল। সব মিলিয়ে আটটি ক্যাম্পে ৮৮৮ দলের প্রায় ৬ হাজার কাব স্কাউট সদস্য অংশ নিয়েছে।কাব স্কাউটরা ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী যারয দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ছিল। এ ছাড়া প্রায় এক হাজার শিক্ষক ও ১৫০০ স্বেচ্ছাসেবক এতে অংশ নিয়েছেন।এবার কাব ক্যাম্পুরিতে অন্যতম একটি বার্তা ছিল তা হল- পলিথিনের কম ব্যবহার ও পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন থাকা। পুরো ক্যাম্প এলাকায় কিছু দূর পরপরই ‘নো প্লাস্টিক’ লেখা সাইনবোর্ড ছিল। ক্যাম্পে আগত সব কাব ইউনিটকে পলিথিনের তৈরি ব্যাগ বা সামগ্রী সঙ্গে না আনার নির্দেশ দেওয়া ছিল। ক্যাম্পে প্রবেশের সময় পলিথিন ও প্লাস্টিক দ্রব্য নিয়ে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

এই দলের সদস্য পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া কবির হোসেন বলেছে, ‘পলিথিন পরিবেশের অনেক ক্ষতি করে। তাই আমাদের এর বিকল্প হিসেবে কাগজ বা অন্য কিছু ব্যবহার করতে হবে। আমি ক্যাম্পে এসেই বিষয়টা শিখেছি।আমাদের ক্যাম্পে কোথাও পলিথিন পড়ে নেই। যেখানে-সেখানে আমরা ময়লা ফেলি না। আমরা পরিবেশ রক্ষা করব—এটাই স্কাউটের শিক্ষা।’

ক্যাম্পুরিতে প্রত্যেক কাব স্কাউট সদস্য ১২টি কার্যক্রম বা স্বপ্নের মাধ্যমে নিজেকে উপস্থাপন করার সুযোগ পেয়েছে। তার মধ্যে একটি স্বপ্ন  সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ভিলেজ (এসডিভি) পরিদর্শন ছিল। কক্সবাজার ভিলেজের সদস্যরা এসডিজির (সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল) ১৭টি লক্ষ্য সম্পর্কে ধারণা পায়।

৫০টি স্টল দিয়ে তৈরি এই ভিলেজে এসে কাব স্কাউটরা দেশের ঐতিহ্য, কৃষ্টি, স্বাস্থ্য, সংস্কৃতি, শিক্ষা ও পরিবেশ সম্পর্কে ভবিষ্যতে করণীয় সম্পর্কে ধারণা পায়। এই ভিলেজের ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের স্টলে উঁকি দিয়ে দেখা যায়, সেখানে দল বেঁধে কাব সদস্যরা একে একে পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার শপথ নিচ্ছে। এই ভিলেজে ছিল বায়োস্কোপ, পুতুলনাচ, গান, নাচসহ নানা আয়োজন।

গত রোববার থেকে শুরু হওয়া কাব ক্যাম্পুরির সমাপনী ছিল গতকাল শুক্রবার। শুক্রবার রাতে মহাতাবু জলসা ও সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয় নবম জাতীয় কাব ক্যাম্পুরি। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে ক্যাম্প ফায়ার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান।

তিনি বলেছেন, কাব, স্কাউট বিএনসিসি—এগুলো অত্যন্ত শক্তিশালী ও সুশৃঙ্খল সংগঠন। বন্যা, ঘূর্ণিঝড়, ভবনধস, পাহাড়ধস, যানজট নিরসনে তারা কাজ করে। তারাই দেশের ভবিষ্যৎ। দেশকে সুশৃঙ্খলভাবে গড়ে তুলতে তারাই কাজ করবে।

 কাব ক্যাম্পুরির সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. শাহ কামাল বলেন, কাব স্কাউটরা সব সময় পরিবেশের কথা ভাবে। যেহেতু পলিথিন পচে না এবং পরিবেশের ক্ষতি করে, সে জন্য এবারের ক্যাম্পে এ নিয়ে বেশি প্রচার ছিল।

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত