27 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
রাত ১১:৪৯ | ২৯শে মে, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
গুহার শেষ প্রান্তে আলোর বিচ্ছুরণ রয়েছে- ডোনাল্ড ট্রাম্প
আন্তর্জাতিক পরিবেশ আশফাকুর রহমান নিলয়

গুহার শেষ প্রান্তে আলোর বিচ্ছুরণ রয়েছে- ডোনাল্ড ট্রাম্প

গুহার শেষ প্রান্তে আলোর বিচ্ছুরণ রয়েছে- ডোনাল্ড ট্রাম্প

– আশফাকুর রহমান নিলয়

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের করোনাভাইরাস টাস্ক ফোর্স বলেছে, নিউইয়র্ক, পার্শ্ববর্তী নিউ জার্সি এবং ডেট্রয়েটের ন্যয় রাজ্যগুলোতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় কোনঠাসা হয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য জায়গায় আসন্ন সপ্তাহে পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে, যদিও কর্মকর্তারা আশা করেছেন যে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পদ্ধতি যথেষ্ট কাজ করছে। করোনাভাইরাসের চিকিৎসার লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ওষুধ তৈরীতে কাজ করছে।

হোয়াইট হাউজের ব্রিফিংয়ে মি. ট্রাম্প বলেন, “এই সুরঙ্গের শেষ প্রান্তে অনেক আলো রয়েছে।” তিনি আরও বলেন যে, করোনার বিষয়ে তাঁর দলের প্রতিক্রিয়ায় তিনি কঠিন প্রশ্নের সাথে ধৈর্য ধরেছেন।

সোমবার নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রিউ কুওমো বলেন যে, দেশের সবচেয়ে বেশি সংকটপূর্ণ রাজ্যে করোনাভাইরাসে সংক্রমণে মৃতের সংখ্যার বক্ররেখা ২ দিনের মধ্যে ইতিবাচক ভাবে সমতল হয়েছে।

তিনি আরও বলেন যে, “যখন এইসব কোনোটিই সুখবর নয়, আক্রান্তের সম্ভাব্য সমতল বক্ররেখাটি বর্তমান ক্রমবর্ধমানভাবে এ রোগের আক্রান্তের খবর হতে ভাল। এম্পায়ার স্টেটে ২০ মিলিয়ন জনসংখ্যার মধ্যে ১ লক্ষ ৩১ হাজার মানুষের মধ্যে সংক্রমণ রয়েছে, নিউইয়র্ক এখনও সংক্রমিত রাজ্যগুলো থেকে দূরে রয়েছে।”

Mike Pence

ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেন যে, তারা ওয়াশিংটন রাজ্য ও ক্যালিফোর্নিয়াতে ইতিবাচক অগ্রগতি দেখেছেন, মানুষদেরকে দূরে রাখার জন্য এবং লোকজনদের সমাগম বন্ধ রাখার জন্য কাজ শুরু করার পরামর্শ দিয়েছেন।
মি. পেন্স বলেন যে, “আপনারা আপনাদের স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ও রাজ্যের কথা শুনুন, আমরা বিশ্বাস করি যে এটি যেমন

হৃদয় ব্যথিত এক সপ্তাহ হবে, ঠিক তেমনি আশারও এক সপ্তাহ হবে।”

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় এলার্জি এবং সংক্রমক রোগ ইন্সটিটিউট (National Institute of Allergy and Infectious Diseases) এর পরিচালক ড. অ্যান্টোনি ফৌসি বলেন যে, ”কিছু জায়গায় আমরা অন্যের চেয়ে এগিয়ে, কিন্তু কৌশলগুলো কাজ করছে।”

২ বা ৩ সপ্তাহ আগে ভাইরাসের সংক্রমণে যেহেতু মানুষজন মারা গিয়েছে, ভবিষ্যতে সংক্রমণ হ্রাস করার জন্য সামাজিক প্রচেষ্টা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

ড. ফৌসি বলেন, “এটি চালিয়ে যান, কারণ এটি আমাদেরকে এই অবস্থা থেকে বের করে আনবে।”

যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রমণের সংখ্যা গত সপ্তাহের শেষে এসে কমে যাওয়ায় এবং হাসপাতালে ভর্তি স্থিতিশীল হওয়ায় গত সোমবার (০৬/০৪/২০২০) ওয়াল স্ট্রিটে সমাবেশ করেছে।

ঐ দিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টক মার্কেট দ্য ডো জোনস শিল্প খাত (The Dow Jones Industrial) পয়েন্ট ১,৬০০ এর কিছু বেশি বা প্রায় ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ২২,৬৮০ তে দিনের লেনদেন শেষ করেছে। অপর দুটি স্টর্ক মার্কেট ইনডেক্স “দ্য এস এন্ড পি ৫০০(The S&P 500)” এবং “নাসডাক কম্পোজিট (Nasdaq Composite)” ও ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।




গুরুতর সংবাদ প্রকাশ অব্যহত রয়েছে, যদিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সব মিলিয়ে মৃতের সংখ্যা এখন ২২,০০০এর কাছাকাছি পৌঁচেছে এবং যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনায় আক্রান্ত হয়ে সংকটপূর্ণ অবস্থায় তাকে কিনা নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (ICU) নেয়া হয়েছিল। এখন অবশ্য নিরাময় হয়ে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে ত্যাগ করেছেন।

মি. ট্রাম্প সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জোসেফ আর. বাইডেন এর জন্যও বিবৃতি দিয়েছিলেন, যিনি সম্ভবত আগামী নভেম্বরের যুক্তরাষ্টের জাতীয় নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হয়ে ট্রাম্পের মুখোমুখি হবেন। রাষ্ট্রপতির সাথে একটি ফোনালাপে মি. বাইডেন এমন প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে পরামর্শের প্রস্তাব করেন, যদিও মি. ট্রাম্প বিষয়গুলো ব্যক্তিগত রেখেছেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন যে, “আমরা মহামারী নিয়ে আলোচনা করেছি। তিনি তাঁর অভিব্যক্তি প্রকাশ করেছেন, আমি তা বুঝতে পেরেছি এবং তিনি একজন ভাল মানুষ। আমি তাঁর আহ্বানের প্রশংসা করি।”

এছাড়াও মি. ট্রাম্প গত সোমবার (০৬/০৪/২০২০) তারিখে শীর্ষ ওষুধ কোম্পাণীর নির্বাহীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি আশাবাদ করেন যে ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চিকিৎসা প্রদান প্রক্রিয়া সঠিক পথেই চলছে এবং ২০২১ এর আগে ভ্যাকসিন আসবে না বলে ধারণা করা যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ঔষধ প্রশাসনের তথ্যমতে বর্তমানে ১০ টি ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান সম্ভাব্য ঔষধ থেরাপীর ক্লিনিকাল ট্রায়াল করছে এবং ১৫ টি প্রতিষ্ঠান ট্রায়ালের জন্য প্রস্তুতির পর্যায়ে রয়েছে।

করোনাভাইরাস চীনের উহানে ডিসেম্বরে প্রথম দেখা যায় এবং বিশ্বব্যাপী এর তীব্রতা দেখা দেওয়ার আগেই পূর্ব এশিয়ার হাজার হাজার মানুষ মারা গিয়েছে। এটি কোভিড-১৯ নামে একটি রোগের সৃষ্টি ঘটায় যা অনেক মানুষের মধ্যে হালকাভাবে ছিল কিন্তু এটি বিশেষত প্রবীণ এবং অন্তর্নিহিত স্বাস্থ্যের অবস্থার সাথে শ্বাসকষ্ট ও মৃত্যুর কারণ হতে পারে।
ইতালি, যারা কিনা বর্তমানে ১৯,৫০০ মৃত্যু নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে, তারা জানিয়েছে যে, মারাত্মক সংক্রমণগুলো কমতে শুরু করেছে। স্পেন ও ফ্রান্সেও সংক্রমণের গতি হ্রাস পাচ্ছে, মূলত লক ডাউনের জন্যই তা হচ্ছে।

Worldometer এর তথ্যমতে, যুক্তরাষ্ট্রে অদ্য ১১/০৪/২০২০ তারিখ পর্যন্ত সংক্রমণের সংখ্যা ৫.২৫ লক্ষ, মৃত্যু ২০,২০০ হলেও ২৮,৫০৭ জন লোক এই ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে।

ইউরোপের ন্যয় আক্রান্তের শৃঙ্খল যুক্তরাষ্ট্র ভেঙে ফেলতে পারবে ট্রাম্প আশাবাদী, তিনি দেশবাসীকে যতটা সম্ভব ঘরে অবস্থানের জন্য বলেছেন আহ্বান জানান এবং ১০ জনের বেশি মানুষের সমাগমকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখতে অনুরোধ করেছেন ।

যুক্তরাষ্টে এখন পর্যন্ত ৫ টি রাজ্যের গভর্নরগণ লকডাউন (Shut down) আদেশ জারি করেননি এবং ৪ টি রাজ্যে আংশিকভাবে জন্য খন্ডে খন্ডে লকডাউন এর আদেশ জারি করা আছে। মি. ট্রাম্প বলেন যে, শাসনতান্ত্রিক বাধবাদিকতা তাকে রাজ্যগুলোর উপর লকঢাউনের সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিতে বাধ্য করেছে, যদিও তাঁর দলের সদস্যরা বলছে যে লোয়া ও নেবরাসকার মতন রেড জোনে থাকা রাজ্যের গভর্নররা এই রোগের

New York on Lockdown: Gatherings Banned, Non-Essential Workers Ordered to Stay Home

নিউিইয়র্কে ইতোমধ্যে কঠোরভাবে পৃথকীকরণ(Quarantine) এর ফল পেতে শুরু করেছে নিউইর্য়ক এর গভর্ণর মি. কুওমো বলেন যে, আসন্ন দিনগুলোতে হাসপাতালে নতুন রোগী ভর্তির সংখ্যা, নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (ICU) তে স্থানান্তরিত করা এবং সংকটাপন্ন রোগীদেরকে কৃত্রিম শ্বাস যন্ত্র (Incubator) এর আওতায় আনা হ্রাস পাবে ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী সেক্রেটারী, স্বাস্থ্য এবং সরকারী অভিন্ন জনস্বাস্থ্য এর প্রধান অ্যাডমিরাল ব্রেট গিরোয়ির এনবিসির টুডে’স শো তে বলেছেন, “আমরা বিশ্বাস করি যে সামাজিক দূরত্ব আমাদেরকে কোণঠাসা করে দিচ্ছে।” তিনি আরও বলেন যে, “নিউ অরলেয়ানস এর ন্যয় শহরে এ ভাইরাসের প্রভাব একটু দেরিতে আসবে। সুতরাং তাদের সময় এই সপ্তাহে নয়, তবে সামনের দিকে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে এবং আমরা কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সমগ্র সারা দেশব্যপী এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সর্বো উচ্চতায় দেখতে পাব।”

A New York City Police Department officer rides on horseback near Radio City Music Hall In New York City on Sunday. Photo by John Angelillo/UPI

তিনি আরও বলেন যে, “আপনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ছোট শহরে অথবা বড় আপেলে থাকুন না কেন, সবাই এই ব্যাপারে সচেতন।”

পেনিসেলভিনিয়ার কর্মকর্তারা বলেছেন নতুন সংক্রমণের হার সাম্প্রতিক দিনগুলোতে মালভূমিতে দেখা দিয়েছে কিন্তু নিম্নগমন এখনও চূড়ান্ত নয় এবং সংক্রমণের সংখ্যা এখন উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে।

কজন ডেমোক্রেট গভর্নর টম ওল্ফ বলেন যে, “একটি উত্থান আসছে এবং সেটি কখন এবং কতটা খারাপ হবে – তা আমরা কি করব তার ওপর নির্ভর করে।” তিনি আরও বলেন যে, “আমাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা অব্যহত রাখতে হবে, আমাদের কমনওয়েলথ জুড়ে স্বাস্থ্যসেবার ব্যবস্থাগুলো কর্মক্ষম সমর্থন করার জন্য আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করা উচিত।”

ইতিবাচক প্রবণতা সত্ত্বেও, হাসপাতালগুলো দুশ্চিন্তায় আছে, কারণ রোগীদের সাহায্যের জন্য চিকিৎসা সামগ্রী শেষ হয়ে যাচ্ছে এবং মহামারী শেষ হওয়ার পূর্বে তাদের কর্মীদের সুরক্ষা নিয়ে তারা চিন্তিত।

গত ০৬/০৪/২০২০ তারিখ স্বাস্ত্য ও মানব কল্যান দপ্তরের (Health and Human Services Department) এর একজন পরিদর্শক জেনারেল বলেন যে,হাসপাতালগুলোতে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সরঞ্জামের মারাত্মক সংকটে রয়েছে। তাদের টেস্ট কিটেরও সংকট রয়েছে এবং যখন তারা পরীক্ষা করে, এর ফলাফল পেতে দীর্ঘ সময় লেগে যায়।

প্রিন্সিপাল ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল ক্রিস্টি এ. গ্রিস বলেন যে, “হাসপাতালগুলোতে টেস্টেএর সরঞ্জাম সরবরাহের সংকট রয়েছে এবং কম সংখ্যক হাসপাতালের কারণে টেস্টের ফলাফল পেতে বিলম্ব হচ্ছে, যার কারণে রোগী ও কর্মীদের স্বাস্থ্য নিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে। পরিসংখ্যানটি মার্চের শেষে করা হয়েছিল।

মি. ট্রাম্প এই সমীক্ষাটি প্রত্যাখান করেন এবং বলেন যে, এটি তাঁর জন্য একটি রাজনৈতিক আঘাত। তিনি আরও বলেন যে, “আপনি যদি আমাকে তার নামটি খুঁজে দিতে পারেন, তবে আমি এটির প্রশংসা করব।” আমেরিকার হাসপাতাল অ্যাসোসিয়েশন অবশ্য এই সমীক্ষাকে বলছে “গুরুত্বপূর্ণ ও সময়োপযোগী।”

এছাড়াও মি. ট্রাম্প হংকংয়ের একজন সাংবাদিকের প্রশ্নকে এড়িয়ে গেছেন, যিনি চীনের সাথে কোভিড-১৯ এর মোকাবেলার জন্য মেডিকেল সরঞ্জাম পাওয়ার ব্যাপারে প্রশ্ন করেছিলেন। তিনি এর পরিবর্তে তাঁর প্রথম ধাপের বাণিজ্য চুক্তির ব্যাপারে কথা বলেছিলেন এবং তারপর জিজ্ঞাসা করেছিলেন তার আউটলেটটি রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কিনা। তিনি বলেছিলেন এটি ব্যক্তিগত মালিকানাধীন ছিল।

মি. ট্রাম্প কিছু প্রতিষ্ঠানকে যুদ্ধকালীন উৎপাদনের ন্যয় দেশীয়ভাবে বেশি সরঞ্জাম উৎপাদনে বাধ্য করার জন্য মৃদু সমালোচনা করছেন ।

রাষ্ট্রপতি বলেন যে, তিনি স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত কর্মীদের জন্য ১৬৬ মিলিয়ন “উন্নত ফেস মাস্ক” তৈরী করার জন্য নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান “3M” যে কিনা প্রবর্তমানে দেশের জন্য অত্যন্ত জরুরী মাস্ক অন্য দেশে রপ্তাণী কররা জন্য হোয়াইট হাউজ কর্তৃক অভিযুক্ত হয়েছে তাকে বাদ দিতে পারেন।

“The USNS Comfort” নামক ১,০০০ শয্যাবিশিষ্ট একটি হাসপাতাল জাহাজ, সম্প্রতি নিউইয়র্ক শহরে পৌঁছেছে। এটি শীঘ্রই কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রস্তুত হয়েছে, এটি আসলে করোনাভাইরাস রোগীদের চিকিৎসা সম্প্রসারনের জন্যই প্রস্তুত করা হয়েছিল।

মি. ট্রাম্প বলেছেন যে, তিনি মি. কুওমো এবং নিউ জার্সির গভর্নর ফিল মারফি এর সাথে কথা বলেছেন এবং উভয় গভর্নরই জাগাজটি ব্যবহারের ব্যাপারে চিন্তা করেছেন। মি. ট্রাম্প হোয়াইট হাউজে বলেছেন যে, “নিউ জার্সি হচ্ছে হটস্পট। তাই গভর্নর মারফি এবং গভর্নর কুওমো এই জাহাজটিকে ব্যবহার করতে বলেছেন, এটি কোভিড-১৯

মি. ট্রাম্প মিডিয়ার সাক্ষাৎকারে বার বার বলেছেন যে, রাজ্য নেতাদের পক্ষ থেকে তীব্র অভিযোগ করা সত্ত্বেও গভর্নররা তাঁর প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন। মহামারীটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে প্রাথমিক সময়সূচী নিয়ে আসবে।

সোমবার উইসকনসিন সুপ্রিম কোর্ট করোনাভাইরাসের প্রাদূর্ভাবের কারণে গত ০৭/০৪/ ২০২০ তারিখের নির্বাচন স্থগিত করার জন্য গভর্নর উনি ইভার্সের সর্বশেষ চেষ্টাটি স্থগিত করে দেয়।

মি. ইভার্স আগের দিন নির্বাচন ৯ ই জুন পর্যন্ত স্থগিত রাখার জন্য একটি নির্বাহী আদেশ জারি করেছিলেন। ডেমোক্রেটরা বলছে যে, জনসাধারণের সুরক্ষার নাম করে ব্যক্তিগতভাবে ভোট দেওয়া বন্ধ করা দরকার।
আদালত রায় দিয়েছে যে, মি. ইভার্সের পক্ষে নির্বাচনকে সরানোর ক্ষমতা নেই।

ফ্লোরিডার গভর্নর রন ডিসান্টিস বুধবার ৯০৮/০৪/২০২০তারিখে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোকে নাইটফল ওয়েডনাসডে এবং ইস্টার সানডে(Nightfall Wednesday and Easter Sunday) এর “উদ্ভাবনী” সপ্তাহের শেষপ্রান্ত পর্যন্ত রাখার জন্য বলেছেন।

রিপাবলিকানরা বলেছে যে, তারা ধর্মীয় নেতাদের অনলাইন পরিষেবা এবং বাহিরের পরিষেবা দিতে দেখে তা দেখে খুশি।
ফ্লোরিডার গভর্ণর মি. ডিসান্টিস বলেছেন যে, “আমরা চাচ্ছি মানুষেরা এই সময়ে আধ্যাত্মিকভাবে একসাথে থাকুক কিন্তু অবশ্যই সামাজিক দূরত্ব রেখে। দয়া করে ঈশ্বরকে কাছে রাখুন, কিন্তু কোভিড-১৯ কে দূরে রাখুন।”

ফ্লোরিডা যেখানে ২১.৩ মিলিয়ন বাসিন্দাদের মধ্যে বৃহৎ সংখ্যক লোকই প্রবীণ, গত সোমবার(০৬/০৪/২০২০) মধ্যর্ণ পর্যন্ত রাজ্যের স্থাস্থ্য দপ্তর (state health department) এর তথ্যমতে ১৩ হাজারেরও বেশি কোভিড-১৯ সংক্রমিত রোগী পেয়েছে এবং ২৩৬ জন মৃত্যুবরণ করেছে। ১,৫০০ এরও অধিক মানুষ ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

মি. ডিসান্টিস সম্প্রতি সমস্ত ফ্লোরিডিয়ানদের পুরো এপ্রিল মাসজুড়ে ঘরে থাকার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। যদিও তিনি উপাসনালয়গুলোকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য আহ্বান করেছেন। তিনি পাদ্রিদেরকে সহযোগিতা বজায় রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

মি. ডিসান্টিস আরও বলেন যে, “আমি মনে করি যে, তারা উদ্ভাবন হয়েছে এবং এটি মানুষের কাছে শেষ পর্যন্ত অনেক গুরুত্বপূর্ণ কিছু হবে। কিন্তু আমরা এখন জন সমাগমের ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ দিকগুলোকে খুঁজে বের করছি।”

Source: Washington Times, BBC

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত