27 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
বিকাল ৫:১২ | ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
জলবায়ু সম্মেলনে দেশের স্বার্থরক্ষার কৌশলে কাজ আদায় করতে হবে
পরিবেশ বিশ্লেষন

জলবায়ু সম্মেলনে দেশের স্বার্থরক্ষার কৌশলে কাজ আদায় করতে হবে

জলবায়ু সম্মেলনে দেশের স্বার্থরক্ষার কৌশলে কাজ আদায় করতে হবে

আসন্ন জলবায়ু সম্মেলনে দেশের স্বার্থরক্ষার কৌশলকে আরও জোরদার করতে একটি কার্যকর ও অন্তর্ভুক্তিমূলক পদ্ধতি গ্রহণের দাবি জানিয়েছে নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা।

আসন্ন জলবায়ু সম্মেলন ‘কপ-২৬: সরকারি অবস্থান এবং নাগরিক সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি’ শীর্ষক এক ওয়েবিনারে বক্তারা এ দাবি জানান।



কোস্ট ফাউন্ডেশন, অরগানাইজেশন ফর স্যোশিও ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট (এওএসইডি), সেন্টার ফর পার্টিসিপেটরি রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (সিপিআরডি), কোস্টাল ডেভেলপমেন্ট পার্টনারশিপ (সিডিপি), কোস্টাল লাইভলিহুড অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট অ্যাকশন নেটওয়ার্ক (ক্লিন) এবং ইক্যুইটি অ্যান্ড জাস্টিস ওয়ার্কিং গ্রুপ বাংলাদেশে (ইক্যুইটিবিডি) যৌথভাবে এই ওয়েবিনারের আয়োজন করে।

ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী। ইকুইটিবিডি’র রেজাউল করিম চৌধুরীর সঞ্চালনায় ওয়েবিনারে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার-২ এর এমপি আশেক উল্লাহ রফিক, পরিবেশ অধিদফতরের পরিচালক মীর্জা শওকতসহ আরও অনেকে। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইকুইটিবিডি’র সৈয়দ আমিনুল হক।

সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আলোচনার প্রবাহকে বাংলাদেশের অনুকূলে নিয়ে আসার চেষ্টা অবশ্যই থাকবে। এর বাইরেও আমাদের প্রধানমন্ত্রী উন্নতদেশগুলোকে বাস্তবসম্মতভাবে গ্রিন হাউজ গ্যাস নিঃসরণ হ্রাস লক্ষ্যমাত্রা মেনে চলতে উৎসাহিত করবেন এবং জিসিএফ তহবিলে ১০০ বিলিয়ন জোগান দেওয়ার ব্যাপারে উৎসাহিত করবেন।

মির্জা শওকত বলেন, আমরা কপ ২৬-এর জন্য একটি অবস্থান তৈরি করেছি এবং সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে বিষয়গুলো নিয়ে সমন্বয় প্রক্রিয়া চলছে। তিনি বলেন, ‘সরকারের অবস্থান প্রাথমিকভাবে অর্থ ও প্রযুক্তির ওপর জোর দেবে এবং আমরা চেষ্টা করবো জিসিএফ তহবিলে অভিযোজনের জন্য ৫০ ভাগ বরাদ্দ রাখার ব্যাপারে একটি ঐকমত্য প্রতিষ্ঠা করতে।



মূল প্রবন্ধে সৈয়দ আমিনুল হক সরকারি প্রতিনিধিদলের কাছে বেশ কয়েকটি দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলোর মধ্যে আছে-বিশ্বব্যাপী তাপমাত্রা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে তাপমাত্রা ১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে রাখার জন্য উন্নত এবং প্রধানদূষণকারী দেশগুলোর অবদান এবং অর্থনৈতিক আয়তনের ভিত্তিতে এনডিসির পুনর্বিবেচনা করা, উন্নত দেশগুলোকে অবশ্যই জিসিএফ – এর বাইরে অতিরিক্ত তহবিল নিশ্চিত করতে হবে, যাতে ক্ষয়-ক্ষতি হ্রাস করা যায় এবং পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাওয়ানো সম্ভব হয়, জিসিএফকে তার অর্থায়ন প্রক্রিয়াকে সহজ করতে হবে, যাতে প্রস্তুতিমূলক কর্মসূচি ও প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি ও বাস্তবায়নের উভয় ক্ষেত্রেই সহজে অর্থ পাওয়া যায় এবং ইউএনএফসিসিসি ক্লাইমেট টেকনোলজি সেন্টার নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অতি বিপদাপন্ন দেশগুলোর উপযুক্ত প্রযুক্তি নিশ্চিত করতে হবে, যাতে প্রশমন এবং অভিযোজন উভয় ক্ষেত্রেই দেশগুলো সক্ষমতা বাড়াতে পারে।

“Green Page” কে সহযোগিতার আহ্বান

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত