32 C
ঢাকা, বাংলাদেশ
দুপুর ১২:২৭ | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
গ্রীন পেইজ
কৃষি পরিবেশ

আম্পানের প্রভাবে আখের জমিতে লোনাপানি, ১০০ বিঘা জমির আখ বিনষ্ট 

আম্পানের ঘা শুকাতে কত দিন লাগবে এটা এখন সময়ের ব্যাপার। কত দিন সময় লাগতে পারে এ বিষয়ে বলা মুশকিল। আম্পানের পরে এরই মধ্যে দেশের বিভিন্ন এলাকায় কালবৈশাখী ঝড় হয়েছে। আগারে ক্ষত শুকানোর আগেই আবার ক্ষত। সব মিলিয়ে আম্পানে ক্ষতির পরিমাণ ব্যাপক।  বিশেষ করে উপকূলীয় অঞ্চলগুলোর বেশি ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু উপকূলের আশে পাশের ক্ষতিও কম হয়নি। আম্পানের প্রভাবে খুলনার ফুলতরায় আখ নষ্ট হয়েছে অনন্ত ১০০ বিঘা জমির।

খুলনার ফুলতলার খানজাহানপুর এলাকায় ঘুর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে ভৈরব নদী সংলগ্ন প্রায় একশ’ বিঘা জমির আখ ক্ষেতে লোনাপানিতে প্লাবিত হয়ে আখ বিনষ্ট হয়ে গেছে। ফলে শতাধিক কৃষকের কোটি টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে।
কৃষি অফিস সূত্র জানায়, গত ২০ মে রাতে ঘুর্ণিঝড় আম্পানে ভৈরব নদীর জোয়ারের লোনাপানির তোড়ে খানজাহানপুর গ্রামের কার্লভার্ট সংলগ্ন বেড়িবাধ ভেঙে আখ ক্ষেত প্লাবিত করে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ২/৩ দিন পর লোনাপানি নেমে যায়। তবে লবণাক্ততার প্রভাবে শতাধিক কৃষকের মওসুমী ফসল ক্ষেতের আখ ধীরে ধীরে বাদামী বর্ণ ধারণ করে শুকিয়ে মারা যায়। এতে ক্ষতির পরিমাণ কোটি টাকা বলে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা চামেলী মল্লিকের দাবি।
খানজাহানপুর গ্রামের আখ চাষী ইসলাম শেখ (৩৫) বলেন, ভৈরব পাড়ের নিজস্ব ৫০ শতাংশ জমিতে ব্যাংক ঋণ করে আখের আবাদ করেছি। এ পর্যন্ত ৬০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।

এ ফসল উঠতে আরও ৫০/৬০ হাজার টাকা খরচ হবে। অন্যান্য বছরের গড় হিসাব অনুযায়ী দুই লক্ষাধিক টাকা বিক্রি হওয়ার কথা। কিন্তু লোনাপানি উঠে সম্পূর্ণ আখই মরে গেছে। এখন চিন্তা একদিকে সারা বছরের ভরণ পোষন, অনদিকে ঋণ পরিশোধের। পাশ্ববর্তী পায়গ্রাম কসবা গ্রামের বর্গাচাষী শেখ কামাল (৫০) বলেন, একটি এনজিও থেকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ ও অন্যের দেড় বিঘা জমি বর্গা নিয়ে আখ চাষে নামি। আশ্বিন/ কার্ত্তিক মাসে ফসল বিক্রি করে টাকা পরিশোধ করা হবে এমন ওয়াদা করে ফুলতলা বাজারের একটি দোকান থেকে সার ও কীটনাশক বাকিতে এনেছি। কিন্তু ঘুর্ণিঝড়ের সময় বেড়িবাধ ভেঙে নদীর লোনা পানি উঠে ক্ষেতের সব আখ মরে যায়। এ অবস্থায় এনজিও ঋণ, বাকিতে আনা সার ও কীটনাশকের টাকা পরিশোধের চিন্তায় নাওয়া-খাওয়া বন্ধ। চরের জমিতে বছরে একবার আখ চাষ করতে বিঘা প্রতি প্রায় এক লক্ষ টাকা খরচ করলে সাধারণত দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকা বিক্রি হয়।
এ কথা বলেন খানজাহানপুর গ্রামের প্রবীণ আখ চাষী ওয়েজক্রণ শেখ (৬৫)। তিনি নিজস্ব আড়াই বিঘা জমিতে লক্ষাধিক টাকা ইতোমধ্যে খরচ করেছেন। আর তিন মাস পর ফসল উঠলে সে টাকা দিয়ে সারা বছরের সংসারের ভরণ পোষনের ব্যায় নির্বাহ করা হয়। কিন্ত আকষ্মিক লোনাপানির প্লাবনে সবই শেষ।

এদিকে ক্ষতিগ্রস্থ আখ চাষিদের পক্ষ থেকে শেখ হাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগে জানা যায়, বেড়িবাধ সংস্কারের জন্য অপর আখ চাষি শামীম শেখ ও তার পিতা মোজাফ্ফর শেখের নিকট ১০ হাজার টাকা গচ্ছিত রাখা হয়। কিন্তু যথাসময় কাজ না করে সে টাকা আত্মসাত করার কারণে জোয়ারের লোনাপানিতেই আখ চাষিরাই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত। তারা ক্ষতিপূরণসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন। অপরদিকে গচ্ছিত টাকার কথা স্বীকার করে শেখ শামীম বলেন, যথাস্থানে বেড়িবাধ দেয়া হয়েছে। কিন্তু ঘুর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে জোয়ারের পানির তোড়ে সেটি ভেঙে ক্ষেতে লোনাপানি উঠে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এলাকার ব্যক্তি বিশেষ আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ করেছে।

ফুলতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভীন সুলতানা বলেন, ঘুর্ণিঝড় আম্পান পরবর্তীতে কৃষকদের ফসলের ক্ষতি বিষয়টি জানতে পেরে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোছা. রীনা খাতুনসহ সরেজমিন পরিদর্শন করেছি। কালভার্ট সংলগ্ন বেড়িবাধ ভেঙে লোনাপানিতে আখ ক্ষেত প্লাবিত হওয়ার ফলেই ক্ষেতর আখ শুকিয়ে যায়। এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের পর পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবুল বাশার জানান, ঘটনার পর পরই স্থানীয় ইউপি সদস্যদের নিয়ে আখ ক্ষেত পরিদর্শন করা হয়েছে। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের প্রনোদনা প্রদান এবং টেকসই বেড়িবাধ নির্মাণের দাবি জানান। সূত্র: মানবজমিন

সম্পর্কিত পোস্ট

Green Page | Only One Environment News Portal in Bangladesh
Bangladeshi News, International News, Environmental News, Bangla News, Latest News, Special News, Sports News, All Bangladesh Local News and Every Situation of the world are available in this Bangla News Website.

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই স্কিপ করতে পারেন। গ্রহন বিস্তারিত